শিরোনাম
শিবালয়ে নিষিদ্ধ সময়ে যমুনার চরে দিনব্যাপী ইলিশের হাট দৌলতদিয়ার যৌনপল্লিতে যৌনকর্মীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার- গোয়ালন্দে কৃষকদের বাধা উপেক্ষা করে প্রভাবশালী মহল মরাপদ্মায় ড্রেজার দিয়ে অবাধে মাটি উত্তোলন করছে দৌলতদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক বহিস্কার গোয়ালন্দে ছাত্রলীগ নেতাকে মারধরের অভিযোগে উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আটক- গোয়ালন্দে ৭০০ গ্রাম গাঁজাসহ দুই জন আটক গোয়ালন্দ প্রবাসী ফোরামের উদ্যোগে অসচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান রাজবাড়ীতে শেখ হাসিনার নির্দেশে মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে সম্মানি বিতরণ অবৈধ ড্রেজার ব্যবসায়ীকে জরিমানা, ৭টি ড্রেজার জব্দ গোয়ালন্দে অসহায় মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ এমপি কন্যা চৈতীর উদ্যোগে

মানিকগঞ্জে শিক্ষার্থীদেরকে পরীক্ষামূলক টিকাদান উদ্বোধন

রনি মন্ডল | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ২৮ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২১

0Shares

সাইফুল ইসলাম, মানিকগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

স্কুলশিক্ষার্থীদের মধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে করোনার টিকা কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে। মানিকগঞ্জে কর্নেল মালেক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে টিকা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) মানিকগঞ্জ সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র মুসাব্বির রহমানকে পরীক্ষামূলক করোনাভাইরাসের টিকা প্রয়োগের মাধ্যমে কার্যক্রম শুরু হয়।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, “১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী
শিক্ষার্থীদের টিকাদান কার্যক্রম মানিকগঞ্জ থেকে শুরু হয়েছে।
আজ মানিকগঞ্জের চারটি স্কুলের ১২০ জন শিক্ষার্থীকে টিকা দেওয়া হবে। আগামী সাতদিন এদের পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। দুই সপ্তাহের মধ্যেই দেশের ২১টি কেন্দ্রে শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া হবে।”

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরো বলেন, “আজকে আমাদের জন্য একটি
আনন্দের দিন। প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছা ছিল শিক্ষার্থীদের মাঝে টিকা দেওয়ার। আমরা সেই কার্যক্রম শুরু করেছি। কর্নেল মালেক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্কুলগামী শিক্ষার্থীদের পরীক্ষামূলকভাবে করোনার টিকা প্রয়োগ কার্যক্রম শুরু করা হলো। আজ ১২০ জনকে করোনার টিকা দেওয়া হবে। পরে দেশের প্রায় ২১টি জায়গায় এই টিকা কর্মসূচি শুরু করবো। আমরা প্রাথমিকভাবে প্রায় ৩০ লাখ শিক্ষার্থীকে টিকা দেবো।”

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরো বলেন, “আমাদের ছেলেমেয়েরা স্কুলে
আসছে। তারা যাতে করোনাভাইরাস থেকে নিরাপদে এবং সুরক্ষিত থাকে এজন্য আজ পরীক্ষামূলকভাবে আমরা স্কুল শিক্ষার্থীদের টিকা প্রয়োগ শুরু করলাম। আমাদের হাতে এখন ৬০ লাখ টিকা আছে। যা আমরা ৩০ লাখ ছেলে-মেয়েদের দিতে পারব। আপনারা জানেন, বাংলাদেশে প্রায় এক কোটির বেশি শিক্ষার্থী রয়েছে। আশা করছি, পর্যায়ক্রমে সবাইকে টিকার আওতায় আনতে পারব।”

বাংলাদেশের প্রথম টিকা নেওয়া মানিকগঞ্জ সরকারি উচ্চ
বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র মুসাব্বির রহমান বলেন, “আমি
বাংলাদেশে শিক্ষার্থীদের মধ্যে সর্বপ্রথম টিকা নিয়েছি। এজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। এজন্য
নিজের কাছে গর্বও লাগছে। টিকা নেবার পর এখনো কোন
সমস্যা হয়নি।”

মানিকগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫০ জন, এসকে সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫০ জন, আলহাজ জাহিদ মালেক উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ জন ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ জন শিক্ষার্থীকে পরীক্ষামূলক টিকা শিক্ষার্থীকে ফাইজারের টিকা দেওয়া হয়েছে।

এসময় স্বাস্থ্য বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ জেলার ভারপ্রাপ্ত
সিভিল সার্জন ডা: মো: লুৎফর রহমান, কর্নেল মালেক মেডিকেল কলেজের প্রিন্সিপাল ডা: মো: জাকির হোসেনসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg