শিরোনাম
শিবালয়ে নিষিদ্ধ সময়ে যমুনার চরে দিনব্যাপী ইলিশের হাট দৌলতদিয়ার যৌনপল্লিতে যৌনকর্মীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার- গোয়ালন্দে কৃষকদের বাধা উপেক্ষা করে প্রভাবশালী মহল মরাপদ্মায় ড্রেজার দিয়ে অবাধে মাটি উত্তোলন করছে দৌলতদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক বহিস্কার গোয়ালন্দে ছাত্রলীগ নেতাকে মারধরের অভিযোগে উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আটক- গোয়ালন্দে ৭০০ গ্রাম গাঁজাসহ দুই জন আটক গোয়ালন্দ প্রবাসী ফোরামের উদ্যোগে অসচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান রাজবাড়ীতে শেখ হাসিনার নির্দেশে মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে সম্মানি বিতরণ অবৈধ ড্রেজার ব্যবসায়ীকে জরিমানা, ৭টি ড্রেজার জব্দ গোয়ালন্দে অসহায় মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ এমপি কন্যা চৈতীর উদ্যোগে

কাজী কেরামত আলী এমপির ব্যানার, ফেস্টুন ও গেট ভাংচুরের অভিযোগ-

রনি মন্ডল | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ৮১ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ৬ অক্টোবর, ২০২১

0Shares

স্টাফ রিপোর্টারঃ

রাজবাড়ী -১ আসনের সংসদ সদস্য (সদর ও গোয়ালন্দ) ও সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলীর ব্যানার, ফেস্টুন ও শুভেচ্ছা গেট ভাংচুর করার অভিযোগ করেছেন।

আগামী ১৬ আগষ্ট রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগের কাউন্সিল উপলক্ষে রাজবাড়ী সদর ও গোয়ালন্দ উপজেলার ৯ টি স্থানে এ ভাংচুর চালানো হয় বলে তিনি অভিযোগে উল্লেখ করেন।

গত রবিবার বিকালে রাজবাড়ীর পুলিশ সুপারের হাতে তিনি ওই অভিযোগ পত্রটি তুলে দেন। এ সময় তিনি এ ঘটনার তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ প্রতিকার চেয়েছেন।

কাজী কেরামত আলী তথ্য মন্ত্রণালয় ও সাংস্কৃতিক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক শিক্ষাপ্রতিমন্ত্রী।এ ছাড়া তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি। তিনি দীর্ঘদিন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।গত নির্বাচনে জয়লাভের পর নিজের ছোটভাই জেলা আওয়ামী লীগের তৎকালীন যুগ্ম সাধারন সম্পাদক কাজী ইরাদত আলীর কাছে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব হস্তান্তর করেন।

এবারের আসন্ন কাউন্সিলে কাজী কেরামত আলী সংবাদ সম্মেলন করে সভাপতি পদপ্রার্থী বলে ঘোষণা দেন। জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি রাজবাড়ী -২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা জিল্লুল হাকিম।

জাতীয় সংসদ সদস্যের প্যাডে লিখিত ওই অভিযোগ পত্রে তিনি বলেছেন, রাজবাড়ী সদর ও গোয়ালন্দ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ও আমার ছবিসহ ব্যানার, ফেস্টুন এবং শুভেচ্ছা গেট দেয়া হয়। রাজবাড়ী জেলা আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা ও আসন্ন (আগামী ১৬ অক্টোবর) ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে কেন্দ্র করে এসব ব্যানার, ফেস্টুন এবং শুভেচ্ছা গেট দেয়া হয়েছিল। কিন্তু বর্ধিত সভার আগের রাত (২০ সেপ্টেম্বর) থেকে এ পর্যন্ত দৌলতদিয়া ফেরী ও লঞ্চ ঘাট এলাকা, দৌলতদিয়া বাইপাস সড়ক, দৌলতদিয়া পুলিশ বক্স থেকে গোয়ালন্দ উপজেলা পর্যন্ত, গোয়ালন্দ রেলগেট থেকে খানখানাপুর বড় ব্রীজ পর্যন্ত, গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদের সামনের গেট, রাজবাড়ী জেলা পরিষদ থেকে শ্রীপুর পর্যন্ত, জেলা শহরের পাবলিক হেলথ, বড়পুর ও রেলগেট এলাকার ব্যানার, ফেস্টুন এবং শুভেচ্ছা গেট ভেঙ্গে ও ছিড়ে ফেলা হয়েছে। যে কারণে তিনি প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জোর সুপারিশ করেছেন।

তিনি এই অভিযোগের অনুলিপি বাংলাদেশ পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের উপ-মহা পরিদর্শক, ডিজিএফআই যশোর শাখার অধিনায়ক, রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক ও এনএসআই রাজবাড়ীর উপ-পরিচালক বরাবর পাঠিয়েছেন।

এ বিষয়ে রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার এমএম শাকিলুজ্জামান সাংবাদিকদের জানান, বিষয়টি খতিয়ে দেখতে এবং যারা এ কাজের সাথে জড়িত তাদের চিহ্নিত করতে রাজবাড়ী ও গোয়ালন্দ থানার অফিসার ইনচার্জকে তিনি নির্দেশ দিয়েছেন।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর জানান, গোয়ালন্দ এলাকায় এ ঘটনার তদন্তের জন্য এসপি স্যার আমাকে নির্দেশ দিয়েছেন। স্যারের নির্দেশনা অনুযায়ী আমি তদন্ত কাজ শুরু করেছি।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg