শিরোনাম
আইনপ্রণেতা হয়ে নিজেই আইন লঙ্ঘন করলেন এমপি মমতাজ নানা অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ গোয়ালন্দ সরকারি হাসপাতালে মসজিদে জমি দান করায় বাবাকে হাতুড়িপেটা করে নির্মমভাবে হত্যা গোয়ালন্দে ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে রাজনীতিকে বিদায় জানালেন ছাত্রলীগ নেতা দুধ বিক্রি না করায় কৃষককে পেটালেন আ.লীগ নেতা ঢাকাসহ ১৩ জেলায় ৬০ কিমি বেগে ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাস বিদ্যালয়ের শ্রেণি কক্ষ ভাড়া নিয়ে চলছে ইউনিয়ন পরিষদের কার্যক্রম ! ব্যাহত হচ্ছে স্কুলের পাঠদান। মানিকগঞ্জে পাসপোর্ট করতে এসে দালালসহ রোহিঙ্গা নারী আটক মানিকগঞ্জে হেরোইনসহ ৫ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার

যৌনপল্লিতে মদ্যপ অবস্থায় ১১মামলার আসামীসহ আটক চার তরুণ-

ষ্টাফ রিপোর্টার | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ১৪৬ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১

0Shares

স্টাফ রিপোর্টারঃ

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া যৌনপল্লিতে মদ্যপ অবস্থায় মাতলামী করে জনসাধারণের শান্তি বিনষ্ট করার অভিযোগে ১১ মামলার আসামী সহ চার তরুণকে আটক করেছে গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ ।

আটককৃতরা হলো গোয়ালন্দ পৌরসভার বিজয় বাবুর পাড়ার মৃত কেসমত মোল্লার ছেলে আশিক মোল্লা (২০), দৌলতদিয়া শাহাদৎ মেম্বার পাড়ার মিজান শেখ ওরফে বিল্লাল কসাইয়ের ছেলে অনিক শেখ (২৩), উত্তর দৌলতদিয়া মজিদ শেখের পাড়ার আক্কাছ আলী মৃধার ছেলে মিজানুর রহমান (২০) ও যৌনপল্লি সংলগ্ন পোড়াভিটা এলাকার সহিদ মোল্লার ছেলে ইব্রাহিম মোল্লা (১৯)।

সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) বিষয়টি নিশ্চিত করেন গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ। আটককৃতদের বিরুদ্ধে থানায় মাদকদ্রব্য আইনে মামলা দায়ের শেষে সোমবার দুপুরে রাজবাড়ীর আদালতে প্রেরন করে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত সাড়ে বারোটার দিকে দৌলতদিয়া যৌনপল্লির ১নং গলির লতিফ এর দোকানের সামনে কয়েকজন তরুন মদসহ নেশাদ্রব্য সেবন করে মাতলামী করছে ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে।

স্থানীয়দের থেকে এমন অভিযোগ পাওয়ার পর দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় কর্তব্যরত থানা পুলিশের দল ঘটনাস্থল থেকে হাতেনাতে উল্লেখিত চার তরুণকে আটক করে। এসময় তারা মদ সহ নেশা জাতীয় দ্রব্য সেবনের কথা স্বীকার করে। পরে ওই রাতেই তাদেরকে গোয়ালন্দ উপজেলার ৫০ শয্যার হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা নেশা সেবনের আলামত পান এবং সে মোতাবেক প্রতিবেদন দাখিল করে। পরে পুলিশ রাতেই তাদের বিরুদ্ধে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় পুলিশ বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য আইনে একটি মামলা দায়ের করে।

সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর বলেন, আটককৃত চার তরুনের মধ্যে আশিক মোল্লার বিরুদ্ধে গোয়ালন্দ ও রাজবাড়ী সদর থানায় ১১টি মামলা রয়েছে। এছাড়া আটককৃত আরেকজন মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধেও তিনটি মামলা রয়েছে। তাদেরকে সোমবার দুপুরে রাজবাড়ীর বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg