শিরোনাম
শিবালয়ে নিষিদ্ধ সময়ে যমুনার চরে দিনব্যাপী ইলিশের হাট দৌলতদিয়ার যৌনপল্লিতে যৌনকর্মীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার- গোয়ালন্দে কৃষকদের বাধা উপেক্ষা করে প্রভাবশালী মহল মরাপদ্মায় ড্রেজার দিয়ে অবাধে মাটি উত্তোলন করছে দৌলতদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক বহিস্কার গোয়ালন্দে ছাত্রলীগ নেতাকে মারধরের অভিযোগে উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আটক- গোয়ালন্দে ৭০০ গ্রাম গাঁজাসহ দুই জন আটক গোয়ালন্দ প্রবাসী ফোরামের উদ্যোগে অসচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান রাজবাড়ীতে শেখ হাসিনার নির্দেশে মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে সম্মানি বিতরণ অবৈধ ড্রেজার ব্যবসায়ীকে জরিমানা, ৭টি ড্রেজার জব্দ গোয়ালন্দে অসহায় মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ এমপি কন্যা চৈতীর উদ্যোগে

৭ ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে থানায় মামলা

রনি মন্ডল | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ১৫৯ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : মঙ্গলবার, ১০ আগস্ট, ২০২১

0Shares

মোশারফ হোসেন কুমারখালী

কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলার নন্দুলালপুর ইউনিয়নের এলঙ্গী পাড়া গ্ৰামে ৭ ম শ্রেণীর স্কুলছাত্রীকে জোর করে ধর্ষণের অভিযোগ কুমারখালী থানার মামলা দায়ের হয়েছে।
এলঙ্গী পাড়া গ্ৰামের মোঃ লতিফ শেখের ছেলে মেহেদী হাসানের (৩০) বিরুদ্ধে এই ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ উঠে । মেহেদী হাসান পেশায় একজন ড্রাইভার।

ছাত্রীর বাবা জানান, আমার মেয়ে মেহেদী হাসানের স্ত্রীর নিকট পড়তে যেত। সেই সুযোগে মেহেদী হাসান বিভিন্ন প্রকার ভয় ভীতি দেখাইয়া । মেহেদীর বাড়িতে কেউ না থাকিলে আমার মেয়েকে বিভিন্ন সময় ধর্ষন করিত।

গত ১৮ জুলাই দুপুরে আমরা বাড়িতে কেহ না থাকায় মেহেদী হাসান সেই সুযোগে আমার বাড়ির ভিতর এসে আমার সোবার ঘরে আমার মেয়েকে মুখ চেপে ধরে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। ঈদের ২ দিন পর এই ঘটনাটি আমার স্ত্রী কে, আমার মেয়ে জানাই।

বিষয়টি স্থানীয় মাতব্বর মোঃ আব্দুল রশিদ এর নিকট বলিলে আব্দুর রশিদ বিষয়টি মীমাংসা করিয়া দিবে বলিয়া বিভিন্ন রকম তালবাহানা করিয়া থানায় আসতে নিষেধ করে।
এই ঘটনায় বিচার চেয়ে কুমারখালী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করি ৭ আগষ্ট রাতে।

এই বিষয়ে মাতব্বর আব্দুল রশিদ জানান, দুই পক্ষই আমার আত্মীয় নিজেরাই বসে সমাধান করতে চেয়েছিলাম। এই জন্য থানায় যে নিষেধ করেছিলাম । রশিদের কাছে জানতে চাওয়া হয় আপনি এই ধরনের বিচার করতে পারেন কি ? তিনি বলেন, কেন ! কোর্ট বিচার করতে পারলে আমি পারবো না কেন। আমি এলাকার মাতব্বর।
স্কুল ছাত্রী জানান, মেহেদী হাসান আমাকে জোড় করে একাধিক বার ধর্ষণ করে।

ধর্ষণের কথা কাউকে বললে আমাকে ও আমার পরিবারের সবাই কে মেরে ফেলা হবে এমন ভয় ভীতি দেখাই মেহেদী হাসান। আমি মেহেদী হাসানের অত্যাচারের হাত থেকে বাঁচতে চাই।
এই বিষয়ে মেহেদী হাসানের স্ত্রী বলেন, আমি শুনেছিলাম যে মেহেদী ঐ ছাত্রীকে হাত ধরেছিল। ধর্ষণের কথা মিথ্যা।
ধর্ষণের ঘটনায় হাসানের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তার ফোন টি বন্ধ পাওয়া যায়।

কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ৪ এর( খ )ধারায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে মামলা নং ১০ । আসামিকে ধরতে চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg