শিরোনাম
গোয়ালন্দে একদিনে নারীসহ ১৩ আসামি গ্রেপ্তার পাটুরিয়া ঘাটে গাড়িসহ ফেরি ডুবি- এক ঘণ্টার জন্য গোয়ালন্দ উপজেলার ইউএনও হলেন বাবলী- শিবালয়ে নিষিদ্ধ সময়ে যমুনার চরে দিনব্যাপী ইলিশের হাট দৌলতদিয়ার যৌনপল্লিতে যৌনকর্মীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার- গোয়ালন্দে কৃষকদের বাধা উপেক্ষা করে প্রভাবশালী মহল মরাপদ্মায় ড্রেজার দিয়ে অবাধে মাটি উত্তোলন করছে দৌলতদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক বহিস্কার গোয়ালন্দে ছাত্রলীগ নেতাকে মারধরের অভিযোগে উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আটক- গোয়ালন্দে ৭০০ গ্রাম গাঁজাসহ দুই জন আটক গোয়ালন্দ প্রবাসী ফোরামের উদ্যোগে অসচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান

পিতৃ পরিচয় ফিরে পেতে অসহায় মুক্তার সংবাদ সম্মেলন

রনি মন্ডল | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ৭৬ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : রবিবার, ২৭ জুন, ২০২১

0Shares

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি:
জন্মের পর থেকেই পিতৃ পরিচয় না পেয়ে দ্বারে দ্বারে ঘুরছে অসহায় মুক্তা আক্তার। একাধিকবার স্থানীয় চেয়ারম্যান মেম্বারদের শরণাপন্ন হলেও এ পর্যন্ত কোন ধরনের সহযোগিতা না পাওয়ার অভিযোগ করেন তিনি।
রোববার (২৭ জুন) দুপুরে মানিকগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাবে পিতৃ পরিচয় ফিরে পেতে সংবাদ সম্মেলন করেন অসহায় মুক্তা।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আমি মুক্তা আক্তার (১৮), পিতা: নিজাম উদ্দিন, সাং আগসাভার, পো: আগসাভার, ইউনিয়ন: বরাইদ, উপজেলা: সাটুরিয়া, জেলা: মানিকগঞ্জ। আমি মোঃ নিজাম উদ্দিনের উরশে মা শিউলি আক্তারের গর্ভে জন্মগ্রহণ করি। আমার জন্মের ৬ মাস পরেই আমার পিতা নিজাম উদ্দিন আমার মা শিউলি আক্তারকে তালাক প্রদান করেন। এরপর থেইে আমার জন্মদাতা পিতা নিজাম উদ্দিন আমাকে স্নেহ মমতা থেকে বঞ্চিত করে পিতৃ পরিচয় দিতে অস্বীকৃতি জানায়। পরবর্তীতে আমার মা শিউলি আক্তারের অন্যত্র বিয়ে হয়। শিশুকাল থেকেই বাবা-মা না থাকায় আমি সমাজে চরম অবহেলা ও অযত্নের মধ্য দিয়ে বেড়ে উঠি।
আমার পিতা নিজাম উদ্দিন আমাকে সন্তানের স্বীকৃতি দিতে অস্বীকার করায় আমি শিশুকাল থেকেই পিতৃ স্নেহ, লেখাপড়া, সমাজে অন্যান্য মানুষের মত স্বাভাবিক জীবনযাপন থেকে বঞ্চিত হয়েছি। পিতৃ পরিচয় না থাকার ফলে অর্থাভাবে আমি চতুর্থ শ্রেণীর বেশি লেখাপড়া করতে পারিনি। সমাজে নানা গঞ্জনা আর অবহেলার মধ্য দিয়ে আমার শিশুকাল ও কৈশর কেটেছে।
তিনি আরোও অভিযোগ করে বলেন, আমি আমার পিতৃ পরিচয়ের দাবি নিয়ে পিতা নিজাম উদ্দিনের বাড়িতে একাধিকবার গেলে আমার সৎমা, দাদি ও আমার পিতা আমাকে অস্বীকার করে বার বার বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়। এ বিষয় নিয়ে আমি একাধিকবার স্থানীয় চেয়ারম্যান মেম্বারদের শরণাপন্ন হলেও কোন ন্যায় বিচার পাইনি। এখন আমার বয়স আঠার বছর। এখন আমি সমাজের মানুষের মুখের ভাষা বুঝতে পারি। এ কারণেই আমি আমার পিতৃ পরিচয় ফিরে পেতে আমার পিতার দ্বারস্থ হয়েও আমার পিতার কাছে সন্তানের অধিকার ফিরে পাইনি।
সর্বশেষ গত মাসের ৩০ তারিখে পিতৃ পরিচয়ের দাবিতে আমার পিতার বাড়িতে গেলে আমাকে মারধর করে বাড়ি থেকে বের করে দেয় ও প্রাণনাশের হুমকি দেয়। এমতাবস্থায় আমি সমাজে ঘৃণিত অবস্থায় অসহায় জীবনযাপন করছি। পিতৃ পরিচয় ফিরে পেতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করছি।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ভুক্তভোগী মুক্তা আক্তারের মা শিউলি আক্তার, মামা শহিদুল ইসলাম ও মুক্তার পিতা নিজামের আপন মামা ও মা শিউলি আক্তারের আপন চাচা মোঃ হারেজ মিয়া প্রমুখ।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg