শিরোনাম
গোয়ালন্দে বিপুল পরিমাণ ফেন্সিডিল ও ইয়াবাসহ আটক ৫ আইনপ্রণেতা হয়ে নিজেই আইন লঙ্ঘন করলেন এমপি মমতাজ নানা অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ গোয়ালন্দ সরকারি হাসপাতালে মসজিদে জমি দান করায় বাবাকে হাতুড়িপেটা করে নির্মমভাবে হত্যা গোয়ালন্দে ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে রাজনীতিকে বিদায় জানালেন ছাত্রলীগ নেতা দুধ বিক্রি না করায় কৃষককে পেটালেন আ.লীগ নেতা ঢাকাসহ ১৩ জেলায় ৬০ কিমি বেগে ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাস বিদ্যালয়ের শ্রেণি কক্ষ ভাড়া নিয়ে চলছে ইউনিয়ন পরিষদের কার্যক্রম ! ব্যাহত হচ্ছে স্কুলের পাঠদান। মানিকগঞ্জে পাসপোর্ট করতে এসে দালালসহ রোহিঙ্গা নারী আটক

রাজবাড়ীতে ২টি মন্দিরে ২টি মূর্তি ভাঙচুর

ষ্টাফ রিপোর্টার | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ২৮৮ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ৩১ মে, ২০২১

0Shares

সুজন বিষ্ণুঃ রাজবাড়ী সদর উপজেলার দাদশী ইউনিয়নের বক্তারপুর গ্রামের ‘দাদশী বারোয়ারী মাতৃ মন্দির থেকে কালীমূর্তি ও বক্তারপুর ভুঁইয়াবাড়ি পারিবারিক মন্দিরের সরস্বতি মূর্তি ভাঙচুর ও মন্দির থেকে মূর্তি বের করে পাশের দাদশী সিংগা সড়কের মাঝখানে রেখে গেছে দুর্বৃত্তরা। রোববার মধ্যরাতে এ ঘটনাটি ঘটে।

খবর পেয়ে রাজবাড়ী জেলা পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। সকালেই ঘটনাস্থলে আসেন রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (রাজবাড়ী সদর সার্কেল) মোঃ শরিফউজ্জামান, রাজবাড়ী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) স্বপন কুমার মজুমদারসহ জেলা পুলিশের তিনটি টিম।

রাজবাড়ী সদর থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার জানান, মন্দির ভাঙচুরের বিষয়ে কেউ অভিযোগ করলে আমরা তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

দাদশী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ লোকমান হোসেন বলেন, একটি মহল শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নষ্ট করার জন্য এমন জঘন্য ঘটনা ঘটিয়েছে। অপরাধীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তারের আশ্বাষ দিয়েছেন মন্দির কমিটির সদস্যদেরকে ।

বারোয়ারী মাতৃ মন্দিরের সভাপতি অসিম কুমার দাস বলেন, আগে কখনো এই মন্দিরে এমন কিছু হয়নি। দুর্বৃত্তরা কেন এ ধরনের ঘটনা ঘটালো তা কিছুতেই বুঝতে পারছি না। মন্দিরে দুটি চিহ্ন রেখে গেছে দুর্বৃত্তরা।

বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জয়দেব কর্মকার বলেন, দাদশী বারোয়ারী মাতৃ মন্দিরে সব ধরনের পুজা হয়। মন্দিরে থাকা কালীমূর্তিটিকে ভেঙে পাশের সড়কের ঠিক মাঝখানে রেখে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এছাড়াও মন্দিরে দুটি চিহ্ন একে রাখা হয়েছে। এর আগেও রাজবাড়ীতে এমন অনেক ঘটনা ঘটেছে বলে জানান তিনি। তবে প্রশাসন কাউকে আইনের আওতায় আনতে পারেনি বলেই এমন ঘটনার বার বার পুনরাবৃত্তি হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।
বাংলাদেশ পুজা উদযাপন পরিষদ রাজবাড়ী সদর উপজেলার সভাপতি অরুন সরকার বলেন, এ ঘটনায় হিন্দু সমাজ আতঙ্কিত হয়ে পরেছে।

দোষীদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার দাবী জানিয়েছে সংগঠনটি।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg