শিরোনাম
গোয়ালন্দে একদিনে নারীসহ ১৩ আসামি গ্রেপ্তার পাটুরিয়া ঘাটে গাড়িসহ ফেরি ডুবি- এক ঘণ্টার জন্য গোয়ালন্দ উপজেলার ইউএনও হলেন বাবলী- শিবালয়ে নিষিদ্ধ সময়ে যমুনার চরে দিনব্যাপী ইলিশের হাট দৌলতদিয়ার যৌনপল্লিতে যৌনকর্মীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার- গোয়ালন্দে কৃষকদের বাধা উপেক্ষা করে প্রভাবশালী মহল মরাপদ্মায় ড্রেজার দিয়ে অবাধে মাটি উত্তোলন করছে দৌলতদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক বহিস্কার গোয়ালন্দে ছাত্রলীগ নেতাকে মারধরের অভিযোগে উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আটক- গোয়ালন্দে ৭০০ গ্রাম গাঁজাসহ দুই জন আটক গোয়ালন্দ প্রবাসী ফোরামের উদ্যোগে অসচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান

রাস্তার জরাজীর্ণ অবস্থা, জনগণের দুর্ভোগ

রনি মন্ডল | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ১৫৭ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ১৯ মে, ২০২১

0Shares

মোশারফ হোসেন কুমারখালী

কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী উপজেলা শিলাইদহ ইউনিয়নের কাঁচ পাকা মোট ৪০ কিলোমিটার রাস্তা আছে। এর মধ্যে ২৫ কিলোমিটার রাস্তা আছে পাকা। তার মধ্যে ২০ কিলোমিটার রাস্তা একেবারে নষ্ট । রাস্তা বললেও ভুল হবে। অনেকটা ধান রোপণ করার উপযোগী ক্ষেতের মতো। গাড়িতো দূরে থাক, হেঁটে পার হওয়াই মুশকিল। তার পরও প্রয়োজনের তাগিদে ওই রাস্তা দিয়েই চলাচল করতে হচ্ছে স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রীসহ গ্রামবাসীকে। এই রাস্তা পার হতে গিয়ে চরম ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের। প্রতি বছর ৫ থেকে ৮ জন ছোট বাচ্চা অবৈধ ট্রাক্টর, টলির নিচে পড়ে মারা যায় ।

আশপাশে কয়েকটি ইটভাটা গড়ে ওঠায় রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন শতাধিক বালু, মাটি, জ্বালানি ও ইটবোঝাই ড্রাম ট্রাক, ট্রলি চলাচল করে। এতে একদিনে যেমন ধুলা বেড়েছে, তেমনি সড়কটিরও বেহাল দশা হয়েছে। এ কারণে চলাচলে দুর্ভোগ পোহাতে হয় আশপাশের বাসিন্দাদের। বারবার অভিযোগ করেও কোনো ফল পায়নি তারা।
বিভিন্ন স্থানে কার্পেটিং (পিচ) উঠে গিয়ে রাস্তার বেহাল অবস্থা। খানাখন্দ সৃষ্টি হওয়ায় যানবাহন ও ইউনিয়নের লক্ষাধিক মানুষের ভোগান্তি বেড়েছে।

রাস্তা সর্ম্পকে খোরশেদপুর গ্রামের বাসিন্দা সাইফুল ইসলাম বলেন, রাস্তাটির বেহাল দশার কারণে চলাচলে আমাদেরকে ভোগান্তিতে পরতে হচ্ছে। রাস্তার পাশে ঘরের টিন গুলো অল্প দিনে নষ্ট হচ্ছে ধুলার স্তুপের কারণে । বাড়িতে বসে ভাত খাওয়া পর্যন্ত যায়না ধুলার কারণে। ১০ মিনিটের রাস্তা যেতে সময় লাগছে ২০ মিনিট। ভাড়াও দিতে হচ্ছে বেশি টাকা। আর যাত্রাপথে অটোরিকশা, সিএনজি ও ভ্যানের যন্ত্রাংশ ভেঙ্গে ঘটছে দুর্ঘটনা। মানুষের দুর্ভোগের কথা চিন্তা করে খুব দ্রুত রাস্তাটি মেরামত করা প্রয়োজন।

মির্জাপুর গ্রামের ভ্যান চালক ওসমান হক বলেন, রাস্তার করুন দশার কারণে ভ্যান চালিয়ে শান্তি পাই না। সময় বেশি লাগে। আর প্রায় প্রতি সপ্তাহেই ভ্যান ঠিকঠাক করতে হয়। এর পেছনেই অনেক টাকা ব্যয় হয়।

জানা যায়, ইউনিয়নের নাওথী, ভবানীপুর, আরপাড়া, খোদ্দোবন গ্ৰাম, খোরশেদ পুর বাজার, কসবা, ছোট মাছগ্ৰাম,বড় মাচগ্ৰাম,কল্যাণপুর, মির্জাপুর, এই গ্ৰামের রাস্তাগুলো এখন চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এই রাস্তাগুলো দিয়ে কুমারখালী, পাবনা, কুষ্টিয়া এবং ৩ টি ইউনিয়নের হাজার- হাজার মানুষ চলাচল করে। অটোরিকশা-ভ্যানযোগে এক কিলোমিটার রাস্তা যেতে লাগে প্রায় ২০ থেকে ২৫ মিনিট।

প্রায় দুই বছরেরও বেশি সময় থেকে রাস্তাটির এই বেহাল দশা হলেও রাস্তাটি মেরামতে নেওয়া হয়নি কোন উদ্যোগ। রাস্তার বেহাল দশার কারণে আরো বেশি বিপাকে রয়েছেন ব্যবসায়ীরা। কৃষি জমি থেকে উৎপাদিত ফসল পরিবহনে বেশি টাকা গাড়ী ভাড়া দিতে হয়। এতে করে তারা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন। এ যানবাহন চলাচল করার সময় সমস্যায় পরতে হয় চালকদের।

অপরদিকে খোরশেদপুর বাজার হতে রবীন্দ্রকুঠী বাড়ি খেয়াঘাট পর্যন্ত প্রায় এক কিলোমিটার রাস্তাটিও চলাচলের একেবারেই অনুপযোগী হয়ে পরেছে। বর্ষা মৌসুমে বন্যার পানি এসে রাস্তাটি একেবারে নষ্ট ।

শিলাইদহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সালাউদ্দিন খান তারেখ বলেন, বর্তমানে রাস্তাটির বেহাল দশার কারণে চলাচলে মানুষদের ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে। উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন মিটিংয়ে আলোচনা করেও সমাধান করার চেষ্টা করছি। অচিরেই সমাধান করা হবে।

উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল রহিম জানান, শিলাইদহ ইউনিয়নের রাস্তাগুলো মেরামতের জন্য এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। অনুমোদন পাওয়া গেলে কাজ শুরু করা হবে। কুষ্টিয়া জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী জাহিদ হোসেন মন্ডল জানান, বার্ষিক উন্নয়ন প্রোগ্রাম রক্ষণাবেক্ষণের জন্য প্রতিবছর জুলাই মাসে এই কাজ শুরু হবে এর মাঝে কুমারখালী শিলাইদহ ইউনিয়নে রাস্তায় কাজ শুরু করা হবে।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg