শিরোনাম
গোয়ালন্দ প্রবাসী ফোরামের উদ্যোগে অসচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান রাজবাড়ীতে শেখ হাসিনার নির্দেশে মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে সম্মানি বিতরণ অবৈধ ড্রেজার ব্যবসায়ীকে জরিমানা, ৭টি ড্রেজার জব্দ গোয়ালন্দে অসহায় মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ এমপি কন্যা চৈতীর উদ্যোগে জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনের মাধ্যমে শেষ হলো রাজবাড়ী সার্কেল আয়োজিত ইসলামিক কুইজ প্রতিযোগিতা ২০২১ করোনা ভাইরাস থেকে পরিত্রাণের জন্য রাজবাড়ী সার্কেলের বিশেষ দোয়া মাহফিল গোয়ালন্দে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার নতুন পোশাক পেল সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা দৌলতদিয়ায় হেরোইনসহ ৩ জন আটক রাজবাড়ী জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ভ্রাম্যমান আদালতে ব্যবসায়ীসহ ৫জনকে অর্থ জরিমানা পশ্চিম আকাশে চাঁদ দেখা গিয়াছে, আগামীকাল থেকে রোজা শুরু 

নিজ বাড়ির পাশেই কৃষকের মরদেহ উদ্ধার

রনি মন্ডল | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ১৩৯ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : শনিবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২১

0Shares

মোশারফ হোসেন কুমারখালী

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে নিজ বাড়ি থেকে সাড়ে তিনশ গজ দুরের ফাঁকা আবাদি জমি থেকে নজির উদ্দিন ওরফে নাসিম উদ্দিন (৫৯) নামের এক কৃষকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার (১৭ এপ্রিল) উপজেলার বাগুলাট ইউনিয়নের ভড়ুয়াপাড়া গ্রামের মাদের মাঠের রজব মোল্লার ফাঁকা জমি থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত ব্যক্তি ওই গ্রামের মৃত হায়াত আলীর ছেলে। তবে নিহতের স্বজনদের অভিযোগ পূর্বশত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষরা নির্মমভাবে হত্যা করেছে।

এলাকাবাসী ও নিহতের পরিবার সুত্রে জানা গেছে, স্থানীয় আওয়ামীলীগ সমর্থিত গোলাম সরোয়ার, দুলাল ও জাহিদ এবং বাবলু, মনোয়ার ও আনোয়ার গ্রুপের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জেরে গত ২৫ জানুআরি বাবলু গ্রুপের সবুর নামের এক কৃষকের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে নিহতের ছেলে থানায় সরোয়ার গ্রুপের সমর্থিতদের আসামী করে মামলা দায়ের করেন। মামলা নিয়েও দুইপক্ষের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা চলছিল। এরমধ্যে আজ শনিবার সকাল ৬ টার দিকে সরোয়ার গ্রুপের সমর্থিত নজির উদ্দিন ও নাসিম উদ্দিনের মরদেহ নিজ বাড়ি থেকে সাড়ে তিনশ গজ পশ্চিমে রজব মোল্লার আবাদি জমিতে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশ খবর দেওয়া হয়। পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

নিহতের ছেলে মিরাজ বলেন, বাবা প্রায় দিনই ঘরের বাইরে পুকুর পাড়ের বাঁশের চরাটের উপর থাকত। গতকাল রাত ১২ টার দিকেও বাবা চরাটের উপর ছিল। এরপর সকাল ৬ টার দিকে আমার চাচী শিউলী খাতুন জানায় আমার বাবা নিজ বাড়ি থেকে সাড়ে তিনশ গজ দুরের (পশ্চিমে) রজব মোল্লার জমিতে ঘুমাচ্ছে। আমি দ্রুত মাঠে গিয়ে দেখি বাবার হাত ও পা বাঁধা। উপর হয়ে পড়ে আছে। চোখে মুখে রক্ত ও আঘাতের চিহ্ন। তিনি আরো বলেন, আমি একজন ভ্যানচালক। আমাকে সবুর হত্যা মামলার আসামী করা হয়েছে। পূর্ব শত্রুতার জেরেই আমার প্রতিপক্ষ বাবলু , রুবেল, মনোয়ার ও মতিয়াররা আমার বাবাকে হত্যা করেছে।

কুমারখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমান বলেন, ফাঁকা মাঠ থেকে নজির উদ্দিন নামের একজনের লাশ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরো বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করা হয়েছে। তবে ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে। এলাকা আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg