শিরোনাম
এক ঘণ্টার জন্য গোয়ালন্দ উপজেলার ইউএনও হলেন বাবলী- শিবালয়ে নিষিদ্ধ সময়ে যমুনার চরে দিনব্যাপী ইলিশের হাট দৌলতদিয়ার যৌনপল্লিতে যৌনকর্মীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার- গোয়ালন্দে কৃষকদের বাধা উপেক্ষা করে প্রভাবশালী মহল মরাপদ্মায় ড্রেজার দিয়ে অবাধে মাটি উত্তোলন করছে দৌলতদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক বহিস্কার গোয়ালন্দে ছাত্রলীগ নেতাকে মারধরের অভিযোগে উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আটক- গোয়ালন্দে ৭০০ গ্রাম গাঁজাসহ দুই জন আটক গোয়ালন্দ প্রবাসী ফোরামের উদ্যোগে অসচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান রাজবাড়ীতে শেখ হাসিনার নির্দেশে মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে সম্মানি বিতরণ অবৈধ ড্রেজার ব্যবসায়ীকে জরিমানা, ৭টি ড্রেজার জব্দ

সেবা পৌঁছে দিতে গোয়ালন্দের দুর্গম চরবাসীর মাঝে একদল চিকিৎসা কর্মী

জহুরুল ইসলাম হালিম | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ১৭৫ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

0Shares

জহুরুল ইসলাম হালিম :
রাজবাড়ী গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ইউনিয়নের পদ্মা-যমুনা নদী বেষ্টিত দুর্গম চর কুশাহাটায় চিকিৎসা সেবা দিয়েছেন স্বাস্থ্যকর্মীদের একটি দল।

গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং দৌলতদিয়া গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র হাসপাতালের উদ্যোগে বুহস্পতিবার দিনব্যাপী সুবিধা বঞ্চিত এ সকল জনসাধারনকে এ চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়।

চিকিৎসা কার্যক্রমের মধ্যে ছিলো- ০ থেকে ১৫ মাস বয়সী সকল শিশুকে ইপিআই টিকা প্রদান। এর পরিচালনায় ছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য সহকারি মো. মোশারফ হোসেন।

অন্যান্য রোগীদের বিভিন্ন চিকিৎসা পরামর্শ প্রদান করেন দৌলতদিয়া গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র হাসাপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. জাহিদুল ইসলাম।

এ সময় প্যাথলজি সেবার পাশাপাশি গর্ভবতী মহিলাদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান করা হয়।

চিকিৎসা সেবায় আরও অংশ নেন দৌলতদিয়া গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের মাঠ সংগঠক রাসেল আহমেদ,মো. সাজ্জাদ হোসেন, মেডিকেল টেকনোলজিস্ট ঈমান হোসেন,কাউন্সিলর জিন্নাত রেহেনা, প্যারামেডিক শিহাব মাহমুদ, হারুন অর রশীদ, ফয়জুন নাহার বৃষ্টি, পিয়ার এডুকেটর বেলী বেগম, রুবি, রুমা আক্তার পায়েল, রেহেনা আক্তার প্রমুখ।

স্বাস্থ্য সহকারি মোশারফ হোসেন জানান, আমরা প্রতি মাসের ১৮ হতে ২০ তারিখের মাঝামাঝি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা. আসিফ মাহমুদের দিক নির্দেশনায় কুশাহাটায় ইপিআই টিকা কার্যক্রম পরিচালনা করি।

দৌলতদিয়া গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের মাঠ সংগঠক সাজ্জাদ হোসেন বলেন, কুশাহাটা চরটি খুবই দূর্গম। দৌলতদিয়া ঘাট থেকে প্রায় ৪ কি. মি. দুরত্ত্বের পদ্মা নদী পাড়ি দেয়ার পর আরো অন্তত ৫ কি. মি. পায়ে হেটে সেখানে পৌঁছাতে হয়। ওই চরে ১২০/১২৫ টি পরিবারের বসবাস। আমরা সেখানে যে কোন দূর্যোগময় পরিস্থিতিতে বিভিন্ন সময় স্যাটেলাইট ক্যাম্পের মাধ্যমে মেডিকেল অফিসারের উপস্থিতিতে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করেছি। এখন থেকে প্রতিমাসেই আমরা সেখানে চিকিৎসা ক্যাম্প রাখার চেষ্টা করব। আমাদের উপস্থিতিতে চরবাসীরা খুবই খুশি হয়েছেন।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg