শিরোনাম
রাজবাড়ীর নবনির্বাচিত মেয়রকে সংবর্ধনা জানালেন আর এস কে ইনস্টিটিউশন ১৯৯৮ এস.এস.সি ব্যাচ মিজানপুর চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোঃ টুকু মিজি’র নির্বাচনী মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত পাংশায় তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে বৃদ্ধ গ্রেপ্তার রাজবাড়ী ডি‌বি পুলিশের অ‌ভিয‌ানে পে‌টের ম‌ধ্যে থেকে বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ দুইজন গ্রেপ্তার রাজবাড়ী পৌরসভায় মেয়র নির্বাচিত হলেন আ.লীগ স্বতন্ত্র প্রার্থী আলমগীর শেখ তিতু গোয়ালন্দ পৌরসভায় প্রথম আ.লীগ সমর্থিত প্রার্থী নজরুল ইসলাম মন্ডলের জয় পদ্মায় কার্গোর সাথে যাত্রীবাহী লঞ্চের সংঘর্ষ, অল্পতে রক্ষা পেলেন দুই শতাধিক যাত্রী রাজবাড়ীতে কোভিড-১৯ টিকা সর্বপ্রথম নিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান গোয়ালন্দে চলন্ত ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আনিছের আত্মহত্যা

পদ্মায় কার্গোর সাথে যাত্রীবাহী লঞ্চের সংঘর্ষ, অল্পতে রক্ষা পেলেন দুই শতাধিক যাত্রী

অনলাইন ডেস্ক | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ১৬২ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : শনিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 62
    Shares

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে দৌলতদিয়া – পাটুরিয়া নৌ রুটে চট্রগ্রাম থেকে নটাখোলা পাবনা গামী তেলবাহী কার্গোর সাথে পাটুরিয়া থেকে দৌলতদিয়া গামী যাত্রীবাহী লঞ্চের সাথে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষের ঘটনায় অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছে যাত্রীবাহী লঞ্চের দুই শতাধিক যাত্রী।

শনিবার (১৩ ই ফেরুয়ারী) দুপুর ১২টার সময় পাটুরিয়া লঞ্চ ঘাট থেকে দুই শতাধিক যাত্রী নিয়ে ছেড়ে আসা এম ভি ফ্লাইংবার্ড ২ দৌলতদিয়া ঘাটের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসলে চট্রগ্রাম থেকে নটাখোলা পাবনা গামী ছেড়ে আসা ফার্নিস ওয়েল ভরা কার্গো সাংহাই ৪ – লঞ্চের বাম পাশের মাঝ বরাবর ধাক্কা দিলে দুর্ঘটনাটি ঘটে। ধাক্কা লাগার সাথে সাথে লঞ্চের উপরে থাকা ৬ থেকে ৭ জন পানিতে পরে যায় এবং ভয়ে আরো প্রায় ৪০ জন যাত্রী পানিতে লাফিয়ে পরে। দুর্ঘটনার কাছে কেরামত আলী ফেরী থাকায় সেটি গিয়ে পানিতে পরা যাত্রীদের উদ্ধার করে এবং কিছু যাত্রী ইঞ্জিন চালিত টলারে উঠে পাটুরিয়া ও দৌলতদিয়ার পাড়ে ওঠে।কেরামত আলী ফেরীতে কর্মরত একজন হকার ৯৯৯ এ ফোন করলে গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করেন । উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তেলবাহী কার্গোটিকে জব্দ করে দৌলতদিয়া ১নং ফেরী ঘাটে নোংগোর করান। পানিতে পরা সবাইকে জীবিত উদ্ধার করা হয়। ধাক্কায় লঞ্চের কিছু ক্ষতি হলেও লঞ্চের কিছু যাত্রী আহত হয়।
লঞ্চ মাষ্টার আবুল হোসেন(৬০) বলেন, পাটুরিয়া থেকে ছেড়ে প্রায় নদীর তিন ভাগ চলে আসি, এ সময় দেখতে পাই দুইটি ওয়েল ট্যাংকার পাল্লা দিয়ে আসছে, আমি লঞ্চ দ্রুত পিছনে নেয়ার চেষ্টা করলেও ওয়েল ট্যাংকার টি আমার লঞ্চের মাঝামাঝি এসে ধাক্কা দেয়। এতে কিছু যাত্রী ভয়ে লঞ্চ থেকে লাভ দিয়ে নদীতে ঝাপদেয়। লঞ্চটির সামন্য ক্ষতি হলেও যাত্রীদের কোন প্রাণহানি ঘটেনি। নদীতে ঝাপদেওয়া যাত্রীদের জীবিত উদ্ধার করা হয়।
বিআইডাব্লিউটিএ’র দৌলতদিয়া ঘাটের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আফতাব উদ্দিন বলেন, দ্রুত গতিতে পাল্লা দিয়ে ওয়েল ট্যাংকার চলার কারনে দুর্ঘটনা আশংকা ছিলো, অল্পের জন্য শতাধিক যাত্রী বোঝাই লঞ্চ টি রক্ষা পেয়েছে।
এদিকে লঞ্চে থাকা যাত্রী সেনাবাহিনীতে কর্মরত মোঃ হারুনুর রশিদ বলেন, আমাদের লঞ্চটি পাটুরিয়া থেকে দৌলতদিয়া ঘাটের প্রায় কাছাকাছি আসতেই তেলবাহী কার্গোটি লঞ্চের বাম পাশের মাঝখানে ধাক্কা দেয়।এতে কিছু লোক পড়ে যায় এবং ৪০ থেকে ৫০ জন ঝাপ দিয়ে পানিতে পড়ে। তিনি আরো বলেন লঞ্চে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে বেশি প্রায় দুই শতাধিক যাত্রী ছিল।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg