বাহুবলী জাতের টমেটো চাষে সাফল্য গোয়ালন্দের কৃষক ইউছুপ ফকির

জহুরুল ইসলাম হালিম | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ১৪৫ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী, ২০২১

সংবাদটি শেয়ার করুন

জহুরুল ইসলাম হালিম : রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলায় আগাম জাতের এ আর মালিক ফিডস্ (প্রাঃ) লিঃ এর বাহুবলী জাতের টমেটো চাষে সাফল্য পেয়েছে ২নং বেপারী পাড়ার কৃষক মো. ইউছুপ ফকির।

এ প্রসঙ্গে কৃষক ইউছুপ ফকির বলেন, আমি এ বছর ২৭ শতাংশ জমিতে আগাম জাতের বাহুবলী টমেটো বীজ রোপন করেছি। ২৭ শতাংশ জমিতে টমেটো রোপনে সার ও কীট নাশকসহ মোট খরচ হয়েছে ১০ হাজার টাকা। এখন পর্যন্ত আমি ৪৫হাজার টাকার টমেটো বাজারে বিক্রি করেছি। আরো ৫৫-৭৫ হাজার টাকার টমেটো বিক্রি করবো অর্থাৎ এ থেকে সব মিলিয়ে কমপক্ষে ১ লাখ থেকে ১লাখ ২০হাজার টাকার টমেটো বিক্রি হবে বলেও জানান তিনি। এই ২নং বেপারী পাড়া এলাকাটি চরালের হওয়ায় বর্ষা মৌসুমে পলি মাটি পরে জমির উর্বরতা বাড়ে। তাই এই টমেটো সহ সব ধরনের সবজিরই ভালো ফলন হয়। বাহুবলী জাতের টমেটো চাষে গত বছরের তুলনায় এ বছর অনেক বেশী ফলন হয়েছে তাছাড়া অন্যান্য জাতের তুলনায় এ জাতের টমেটোতে বাজারে দামও ২-৩ টাকা বেশী পাওয়া যায়। আমাদের এলাকার অনেক কৃষকরা এ জাতের টমেটো চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছে। আগামী বছর এ এলাকায় ৫০-৬০ একর জমিতে এই জাতটি চাষ হবে বলে আশা করছি।

গোয়ালন্দ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রকিবুল ইসলাম বলেন, টমেটো চাষে কৃষি বিভাগ থেকে কৃষকদের বিভিন্ন ধরনের পরামর্শ প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া দেওয়া হয়েছে প্রনোদনাও। টমেটোর রোগ বালাই থেকে মুক্তির জন্য মাঠ পর্যায়ে আমরা খোঁজ খবর রাখছি। বাহুবলী জাতের টমোটো চাষে ভালো ফলন ও ভালো দাম পাওয়ায় আগামীতে বাহুবলী টমেটোর আবাদ আরো বাড়বে বলে আশা করা হচ্ছে।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg