আজ ৩০ ডিসেম্বর : গণতন্ত্রের বিজয় বনাম গণতন্ত্রের হত্যা

সম্পাদকীয় | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ৯৭ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ৩০ ডিসেম্বর, ২০২০

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 23
    Shares

৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দুই বছর পূর্তি৷ এই দিনটিকে শাসক দল আওয়ামী লীগ পালন করছে গণতন্ত্রের বিজয় দিবস হিসেবে৷ আর বিএনপি পালন করছে গণতন্ত্র হত্যার কালো দিন৷
২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে মেনে নেয়নি বিএনপি৷ নির্বাচনের পরপরই ‘ভোটের আগের রাতে ভোট’ হয়েছে বলে প্রত্যাখ্যান করে নতুন নির্বাচন দাবি করে দলটি৷ তাদের মতে আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে কোনো সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয় তাই তারা চায় নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন৷ তারা সংসদে না যাওয়ারও ঘোষণা দিয়েছিলো৷ কিন্তু একমাত্র বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ছাড়া বিএনপি তথা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচিত সবাই শপথ নেন এবং সংসদে যোগ দেন৷ এই নির্বাচনে বিএনপি মাত্র সাতটি আসন পায়৷

বাংলাদেশের বর্তমান নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে ‘গুরুতর অসদাচারনের’ অভিযোগ করেছেন ৪২ জন বিশিষ্ট নাগরিক৷ পাশাপাশি অনিয়ম, দুর্নীতি এবং নিয়োগ বাণিজ্যেরও অভিযোগ এনেছেন তারা৷ প্রতিক্রিয়ায় ইসি বলছে তারা আইনের বাইরে কিছু করেনি৷
নির্বাচন বাতিলের দাবিতে বিএনপি এখনো অনঢ়৷ কিন্তু তারা এরপর উপ-নির্বাচন ও স্থানীয় সরকারের সব নির্বাচনে অংশ নিয়েছে৷ বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘‘আমরা নির্বাচন বাতিলের দাবিতে এখনো অনঢ় আছি৷ তবে নির্বাচন ব্যবস্থা টিকিয়ে রাখা ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য এখনকার নির্বাচনগুলোতে অংশ নিচ্ছি৷ আর বার বার প্রমাণ হচ্ছে এই সরকারের অধীনে সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়৷’’

৩০ ডিসেম্বরকে গণতন্ত্র হত্যা এবং কালো দিবস ঘোষণা করে সারাদেশে বিক্ষোভ ও কালো পতাকা মিছিলের কর্মসূচি দিয়েছে বিএনপি৷ সকাল ১১ টায় ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে কেন্দ্রীয়ভাবে আর একই সময়ে দেশের জেলা এবং উপজেলা পর্যায়েও কর্মসূচি পালিত হবে৷

আওয়ামী লীগ মনে করে ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের মধ্য দিয়ে দেশের গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা রক্ষা হয়েছে৷ এই দিনটিকে তাই তারা ‘গণতন্ত্রের বিজয়’ দিবস হিসেবে পালন করছে৷ সকালে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিতিতে আলোচনা সভা আর বিকেলে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে সমাবেশ করবে আওয়ামী লীগ৷ দেশের জেলা, উপজেলা থেকে শুরু করে ওয়ার্ড পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিজয় সমাবেশ করতে বলা হয়েছে৷
সূত্র, ডয়েচে ভেলে

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg