শিরোনাম
সার্কেল ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে রাজবাড়ী সদরের উড়াকান্দা বাজারে মানবতার দেওয়াল শাজাহান হোসেন মনির ব্যক্তিগত উদ্যোগে দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ সার্কেল ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বালিয়াকান্দিতে মানবতার দেওয়াল রাজবাড়ীতে নৈশ মিনি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত বহরপুরে জাটকা বিক্রয়ে তিন ব্যবসায়ীকে জরিমানা আগামীকাল থেকে এসএসসি’র রেজিস্ট্রেশন কার্ড বিতরণ পাংশাতে পরোয়ানা ভুক্ত আসামী গ্রেফতার মাগুরা থেকে আসা যুবকের‘সড়ক দুর্ঘটনায়’গোয়ালন্দে মৃত্যু পদ্মা পাড়ে মাটি কাটতে বেপরোয়া হয়ে ওঠেছে স্থানীয় প্রভাবশালীরা গোয়ালন্দে মাস্ক না পরায় ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা

সেনাবাহিনীর ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জিওসির মা মােছা: সুফিয়া রহমানের মৃত্যু বার্ষিকী পালিত

নিউজ ডেস্ক | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ৪৫ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২০

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 13
    Shares

রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলার কশবামাজাইল ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ও বিমান বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মরহুম শাহ লুৎ্ফর রহমানের সহধর্মিনী এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল এস.এম মতিউর রহমানের মাতা রত্মগর্ভা মােছাঃ সুফিয়া রহমানের ৫ম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে মরহুমার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনায় পারিবারিক উদ্যোগে গত মঙ্গলবার ভাতশালা গ্রামে মরহুমার বাসভবনে কোরআনখানী ও বাদ আসর স্বাস্থবিধি মেনে কশবামাজাইল ইউপির ভাতশালা গ্রামের ৩টি এবং কেওয়া গ্রামের ১টি মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখ্য ২০১৫ সালে ১৭নভেম্বর সাত সাড়ে ৯ টায় বার্ধক্যজনিত কারণে ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মােছাঃ সুফিয়া রহমান (৭৫) ইন্তেকাল করেন এবং ১৯ নভেম্বর বিকেল সাড়ে ৪ টায় বাদ আসর দ্বিতীয় জানাযা শেষে তাকে ভাতশালা গ্রামের নিজ বাড়ী সংলগ্ন মসজিদের পাশে দাফন করা হয়। মৃত্যুকালে তিনি ৫ পুত্র ও ৪ কন্যাসহ বহু আত্মীয়-স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে যান। রত্নগর্ভা এ নারীর প্রত্যেক পুত্র ও কন্যা দেশ-বিদেশে প্রতিষ্ঠিত। অতি সম্প্রতি তার বড়পুত্র দেশ বরেণ্য কবি ও ছড়াকার নাসের মাহমুদ (৬৫) ইন্তেকাল করেন। মরহুমার স্বামী শাহ্ লুৎফর রহমান ছিলেন ভাতশালার জমিদার আবিদ আলী শাহ্ বংশধর। তিনি (শাহ্ লুৎ্ফর রহমান) বৃটিশ বিমান বাহিনীর সৈনিক হিসেবে
দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। পাকিস্থান আমলে (১৯৬০-৬৫) তিনি কশবামাজাইল ইউনিয়ন কাউন্সিলের পেসিডেন্ট ছিলেন। এছাড়াও তিনি ১৯৬২ সালে পাকিস্থান জাতীয় পরিষদের সদস্য (এমএনএ) পদে নির্বাচন করেন। তিনি ১৯৭০ সালের ৯ জুন ইন্তেকাল করেন।

জুলফিকার আলী

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর