শিরোনাম
দৌলতদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক বহিস্কার গোয়ালন্দে ছাত্রলীগ নেতাকে মারধরের অভিযোগে উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আটক- গোয়ালন্দে ৭০০ গ্রাম গাঁজাসহ দুই জন আটক গোয়ালন্দ প্রবাসী ফোরামের উদ্যোগে অসচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান রাজবাড়ীতে শেখ হাসিনার নির্দেশে মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে সম্মানি বিতরণ অবৈধ ড্রেজার ব্যবসায়ীকে জরিমানা, ৭টি ড্রেজার জব্দ গোয়ালন্দে অসহায় মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ এমপি কন্যা চৈতীর উদ্যোগে জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনের মাধ্যমে শেষ হলো রাজবাড়ী সার্কেল আয়োজিত ইসলামিক কুইজ প্রতিযোগিতা ২০২১ করোনা ভাইরাস থেকে পরিত্রাণের জন্য রাজবাড়ী সার্কেলের বিশেষ দোয়া মাহফিল গোয়ালন্দে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার নতুন পোশাক পেল সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা

ছাতক থানার নবাগত ওসি মোরশেদকে চট্রগ্রাম রেঞ্জে বদলি

নিউজ ডেস্ক | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ২৩৯ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০

0Shares

সুনামগঞ্জ জেলার ছাতক থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হিসেবে আহমেদ সনজুর মোরশেদ ১২ সেপ্টেম্বর যোগদান করেছিলেন। শাল্লা থানা থেকে ছাতক থানায় যোগদান করার ১১ দিনের মাথায় ২২ সেপ্টেম্বর সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে তার বদলীর নির্দেশ আসে।

জানা যায়, ২০১৪ইং থেকে ১৫ ও ১৬ সালের কয়েক মাস ছাতক থানায় এসআই হিসেবে কর্মরত ছিলেন থানার বর্তমান ওসি আহমেদ সনজুর মোরশেদ।

পরবর্তীতে তিনি ছাতক থেকে ওসি (তদন্ত) হিসেবে দায়িত্ব নিয়ে যোগদান করেছিলেন সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানায়। অত্যন্ত চৌকস পুলিশ অফিসার হিসেবে সুনামগঞ্জ সদরবাসীর তিনি জনপ্রিয় হয়ে উঠেন। এর পর এখান থেকে পদোন্নতী নিয়ে ওসি হয়ে যোগদান করেছিলেন শাল্লা থানায়। সেখানে মাত্র ২ মাস ১০দিন অফিসার ইনচার্জ হিসেবে চেয়ারে বসে তিনি কয়েকটি গ্রামের মানুষকে অন্যায় কার্যক্রম থেকে মুখ ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হন এবং তার মাধ্যমে আলোর ছোঁয়া দেখেছিলো শাল্লাবাসী। এসব কার্যক্রমের সচিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ায় সবার প্রশংসা পেয়েছিলেন তিনি। যাদের পেশা ছিল মদ তৈরি ও বিক্রয় করা, চুরি, ডাকাতি ও ছিনতাই তাদেরকে সু-পরামর্শ দিয়ে অন্যায় পেশা থেকে বিরত রাখার চেষ্টা করেন। পাশাপাশি তাদের সন্তানদের লেখা পড়ার জন্য তিনি বই খাতা ও কলম তুলে দিয়েছিলেন।

অফিসার ইনচার্জের এমন মানবিক দৃষ্ঠান্ত দেখে স্বেচ্ছায় শাল্লা থানার বিভিন্ন ইউনিয়নের একাধিক মামলার আসামীরা তার কাছে আত্মসমর্পন করেছিল। অফিসার ইনচার্জ সনজুর মোরশেদ এর এমন মানবিকতায় মুগ্ধ পুলিশ ডিপার্টমেন্ট। তার মতো পুলিশ অফিসারদের মানবিক কার্যক্রমে পুলিশ প্রশাসনের উপর মানুষ অাস্তা ও বিশ্বাস খুজে পায়। এ ধারাবাহিকতায় সমাজের অবহেলিত, লাঞ্চিত-বঞ্চিত, নির্যাতিত মানুষের পক্ষে সর্বদায় ন্যায় বিচারে ভূমিকা রাখায় সততা, ন্যায়নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে ছাতক থানাকে মাদক, জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাস, জুয়া ও নদীকে চাঁদাবাজ মুক্ত করার ঘোষণা দেন নবাগত ওসি মোরশেদ। তিনি পেশাদার চুর ডাকাতদের অাত্মসমর্পন করার জন্য পুরস্কার হিসেবে পূনর্বাসনের ঘোষণা দেন।

রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই হাবিবুর রহমান পিপিএমসহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যদের সাথে নিয়ে সুরমা নদীতে যান এবং নৌকা যোগে নৌ-যান থেকে চাঁদা মুক্ত রাখতে তিনি নিজেই মাইকিং করেন। তার এসব সাফল্য ও মেধা দেখে বাংলাদেশ পুলিশ প্রধান (আইজিপি) বেনজির আহমদ এর সু-দৃষ্টি পড়ে। ফলে দূর্নীতিগ্রস্থ কক্সবাজার জেলায় পদায়নের লক্ষ্যে পুলিশের ভাবমূর্তি ফিরিয়ে আনতে সারা বাংলাদেশ থেকে ৮ জন দক্ষ, চৌকুস ও মানবিক পুলিশ অফিসার ইনচার্জ চট্টগ্রাম রেঞ্জে বদলি করা হয়। এর মধ্যে অন্যতম হলেন ছাতক থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জ আহমেদ সনজুর মোরশেদ। তিনি নেত্রকোনা জেলার মদন উপজেলা বাসিন্ধা।

সুনামগঞ্জ(ছাতক) প্রতিনিধি

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg