পাটের ন্যায্যমূল্য পাওয়া নিয়ে সংশয়ে কৃষক

রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ ডেস্ক / ৩২২ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : শুক্রবার, ১৭ জুলাই, ২০২০

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 222
    Shares

সোনালী আঁশ পাটের দেশ বাংলাদেশ। গ্রামের চারিদিকে চোখে পড়বে কৃষকের এমন কর্মব্যস্ততা।

পাট কাটা, ধোয়া ও শুকানোর কাজে ব্যস্ত সময় পার করছে কৃষক। বাংলাদেশের অর্থনীতিতে পাট ও পাটজাতপণ্যের ভূমিকা অপরিসীম। পাটজাত পণ্য রপ্তানি করে বাংলাদেশ প্রতি বছর বিপুল পরিমাণে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করছে। কিন্তু পাটের ন্যায্যমূল্য পাওয়া নিয়ে কৃষকেরা সংশয় প্রকাশ করেছে।

কৃষকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে পাট চাষ করতে তাদের যে পরিমাণ খরচ হচ্ছে পাটের বর্তমান বাজার মূল্যে তাদের লোকসান হচ্ছে। এবছর অতি বৃষ্টির কারণে পাটের ফলন ভালো হয়নি। কৃষক আনিস মন্ডল বলেন এখন পাট কাঁটা,ধোয়া ও শুকানোর জন্য ঠিক মতো কাজের লোক পাওয়া যাচ্ছে না, এবং একটা রোজের দাম ৫০০- ৬০০ টাকা দিতে হচ্ছে।

মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে অন্য জেলা থেকে লোক নিয়ে এসে কাজ করানো যাচ্ছে না। কৃষকদের দাবি সরকার যেন তাদের কথা চিন্তা করে পাটের ন্যায্যমূল্য নির্ধারণ করেন।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর