শিরোনাম
গোয়ালন্দে পৌর কৃষক লীগের উদ্যোগে গাছের চারা বিতরণ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত দৌলতদিয়া ঘাটে ফেরিপারের অপেক্ষায় পণ্যবাহী শত শত ট্রাক আটকা রাজবাড়ী জেলা পরিষদের ২নং ওয়ার্ডের উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত বেতনে সংসার চলে না, পদত্যাগের কথা ভাবছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ধর্ষকদের বিরুদ্ধে তীব্র সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে, মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে ৭ দফা দাবিতে সরকারি কলেজ শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন ৭১ উপজেলায় মধ্যে রাজবাড়ীর পাংশাতেও কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন করা হচ্ছে গোয়ালন্দ পৌরসভার মেয়র প্রার্থী কি হবেন শেখ শালিমুজ্জামান হিরন ছাতকের পল্লীতে ধর্ষণ মামলায় পুলিশের হাতে যুবক গ্রেফতার

দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে ,২লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট, চাঁদাবাজির অভিযোগে গ্রেফতার-২

নিউজ ডেস্ক | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ১৮৮ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ২৪ আগস্ট, ২০২০

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 64
    Shares

রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে ২৩ আগস্ট রবিবার ভোররাত ৫ ঘটিকার সময় মোছা. নাজমা বেগম ( ৫০) এর বাড়ীতে জোড় র্পূবক চাঁদা দাবি ও মালামাল লুট হওয়ার ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গছে। সন্ত্রাসীদের হামলায় বাড়ীর দারোয়ান গুরুতর আহত মুক্তার হোসেন (৪০) নামে একজনকে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে র্ভতি করা হয়ছে।

সন্ত্রাসীরা নগদ ১ লক্ষ টাকা, মোবাইল, স্বর্ণের গহনা সহ প্রায় ২ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ছিনিয়ে নেয়। এ সময় বাধা দেয়ার চেষ্টা করলে বাড়ীওয়ালী নাজমা বেগম (৫০), রোকন (৪২), সাগর চৌধুরী (২৫), সুজন চৌধুরী (১৩) হামলায় আহত হন। তাদরেকে স্থানীয় চিকিৎসক দ্বারা চিকিৎসা করা হয়। চাঁদাবাজ চক্রটি স্থানীয় প্রভাবদের নেতৃত্বে যৌন পল্লীর মধ্যে বিভিন্ন সময় ডাকাতি , ছিনতাই চাঁদাবাজি করে ত্রাস সৃষ্টি করে । এদের অনেকের বিরুদ্ধে হত্যা সহ একাধিক মামলা রয়েছে । কেও কেও এলাকায় পেশাদার সন্ত্রাসী হিসাবে চিহ্নিত। এ ঘটনায় বাড়ীওয়ালী নাজমা বেগম ২৪ আগস্ট সোমবার সকালে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় একটি এজাহার দায়রে করেন।

এতে তিনি উল্লেখ করেন, রবিবার ভোর রাত ৫ টার দিকে স্থানীয় চিহ্নিত সন্ত্রাসী নুরু কাজী, আরিফ, পিঞ্জয়, টুটুল, জসিম, লিটন, হিরু, রাজিবসহ অজ্ঞাতনামা আরোও ১০/১২ জনের একটি দল অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে যৌন পল্লীতে তার বাড়ীতে প্রবেশ করে। তারা আমাদেরকে মারধোর করে নগদ ১ লক্ষ টাকা, মোবাইল, স্বর্ণের গহনাসহ ২ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ছিনিয়ে নেয়। চাঁদাবাজ এ চক্রটি গত ৮/৬/২০ ইং তারিখে আমার কাছ থেকে জোর করে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা আদায় করে। পূনরায় আজ চাঁদা নিতে আসলে, তাদের কে চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় তারা আমাকে হত্যার হুমকি দেয় এবং নগদ টাকা সহ মালামাল লুট করে নেয় ।

এ বিষয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর বলেন,এ বিষয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় নাজমা বেগম বাদী হয়ে চাঁদাবাজি ,চাঁদা দাবী ,চুরির অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেছেন। ২ জন আসামী কে গ্রেফতার করা হয়েছে , বাকি আসামীদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে ।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর