শিরোনাম
দৌলতদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক বহিস্কার গোয়ালন্দে ছাত্রলীগ নেতাকে মারধরের অভিযোগে উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আটক- গোয়ালন্দে ৭০০ গ্রাম গাঁজাসহ দুই জন আটক গোয়ালন্দ প্রবাসী ফোরামের উদ্যোগে অসচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান রাজবাড়ীতে শেখ হাসিনার নির্দেশে মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে সম্মানি বিতরণ অবৈধ ড্রেজার ব্যবসায়ীকে জরিমানা, ৭টি ড্রেজার জব্দ গোয়ালন্দে অসহায় মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ এমপি কন্যা চৈতীর উদ্যোগে জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনের মাধ্যমে শেষ হলো রাজবাড়ী সার্কেল আয়োজিত ইসলামিক কুইজ প্রতিযোগিতা ২০২১ করোনা ভাইরাস থেকে পরিত্রাণের জন্য রাজবাড়ী সার্কেলের বিশেষ দোয়া মাহফিল গোয়ালন্দে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার নতুন পোশাক পেল সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা

দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে ,২লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট, চাঁদাবাজির অভিযোগে গ্রেফতার-২

নিউজ ডেস্ক | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ২৭৭ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ২৪ আগস্ট, ২০২০

0Shares

রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে ২৩ আগস্ট রবিবার ভোররাত ৫ ঘটিকার সময় মোছা. নাজমা বেগম ( ৫০) এর বাড়ীতে জোড় র্পূবক চাঁদা দাবি ও মালামাল লুট হওয়ার ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গছে। সন্ত্রাসীদের হামলায় বাড়ীর দারোয়ান গুরুতর আহত মুক্তার হোসেন (৪০) নামে একজনকে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে র্ভতি করা হয়ছে।

সন্ত্রাসীরা নগদ ১ লক্ষ টাকা, মোবাইল, স্বর্ণের গহনা সহ প্রায় ২ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ছিনিয়ে নেয়। এ সময় বাধা দেয়ার চেষ্টা করলে বাড়ীওয়ালী নাজমা বেগম (৫০), রোকন (৪২), সাগর চৌধুরী (২৫), সুজন চৌধুরী (১৩) হামলায় আহত হন। তাদরেকে স্থানীয় চিকিৎসক দ্বারা চিকিৎসা করা হয়। চাঁদাবাজ চক্রটি স্থানীয় প্রভাবদের নেতৃত্বে যৌন পল্লীর মধ্যে বিভিন্ন সময় ডাকাতি , ছিনতাই চাঁদাবাজি করে ত্রাস সৃষ্টি করে । এদের অনেকের বিরুদ্ধে হত্যা সহ একাধিক মামলা রয়েছে । কেও কেও এলাকায় পেশাদার সন্ত্রাসী হিসাবে চিহ্নিত। এ ঘটনায় বাড়ীওয়ালী নাজমা বেগম ২৪ আগস্ট সোমবার সকালে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় একটি এজাহার দায়রে করেন।

এতে তিনি উল্লেখ করেন, রবিবার ভোর রাত ৫ টার দিকে স্থানীয় চিহ্নিত সন্ত্রাসী নুরু কাজী, আরিফ, পিঞ্জয়, টুটুল, জসিম, লিটন, হিরু, রাজিবসহ অজ্ঞাতনামা আরোও ১০/১২ জনের একটি দল অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে যৌন পল্লীতে তার বাড়ীতে প্রবেশ করে। তারা আমাদেরকে মারধোর করে নগদ ১ লক্ষ টাকা, মোবাইল, স্বর্ণের গহনাসহ ২ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ছিনিয়ে নেয়। চাঁদাবাজ এ চক্রটি গত ৮/৬/২০ ইং তারিখে আমার কাছ থেকে জোর করে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা আদায় করে। পূনরায় আজ চাঁদা নিতে আসলে, তাদের কে চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় তারা আমাকে হত্যার হুমকি দেয় এবং নগদ টাকা সহ মালামাল লুট করে নেয় ।

এ বিষয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর বলেন,এ বিষয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় নাজমা বেগম বাদী হয়ে চাঁদাবাজি ,চাঁদা দাবী ,চুরির অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেছেন। ২ জন আসামী কে গ্রেফতার করা হয়েছে , বাকি আসামীদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে ।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg