শিরোনাম
শিবালয়ে নিষিদ্ধ সময়ে যমুনার চরে দিনব্যাপী ইলিশের হাট দৌলতদিয়ার যৌনপল্লিতে যৌনকর্মীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার- গোয়ালন্দে কৃষকদের বাধা উপেক্ষা করে প্রভাবশালী মহল মরাপদ্মায় ড্রেজার দিয়ে অবাধে মাটি উত্তোলন করছে দৌলতদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক বহিস্কার গোয়ালন্দে ছাত্রলীগ নেতাকে মারধরের অভিযোগে উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আটক- গোয়ালন্দে ৭০০ গ্রাম গাঁজাসহ দুই জন আটক গোয়ালন্দ প্রবাসী ফোরামের উদ্যোগে অসচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান রাজবাড়ীতে শেখ হাসিনার নির্দেশে মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে সম্মানি বিতরণ অবৈধ ড্রেজার ব্যবসায়ীকে জরিমানা, ৭টি ড্রেজার জব্দ গোয়ালন্দে অসহায় মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ এমপি কন্যা চৈতীর উদ্যোগে

জানুন, বিশ্বের সবচেয়ে ছোট দেশ কোনটি?

অনলাইন ডেস্ক | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ৩৪৩ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২০

0Shares

ইংল্যান্ডের উত্তর সাগরে এই রাষ্ট্রটির অবস্থান।
‘সিল্যান্ড’ হল একটি অণুরাষ্ট্র ( Micronation মাইক্রোনেশন)। এর সরকার হল “প্রিন্স মিচেল বেটস”, এটি প্রতিষ্ঠিত হওয়ার ঘোষণা হয় ২ সেপ্টেম্বর ১৯৬৭ সালে।

ক্ষুদ্রতম দেশটির মোট আয়তন ৫৫০ বর্গমিটার। দেশটির একটি রাজধানীও রয়েছে। দেশটির রাজধানীর নাম HM Fort Roughs। এই দেশটি সাগরের উপর ভাসমান অবস্থায় রয়েছে। মাটি থেকে অনেকটা উপরে দুটো বড় বড় ইস্পাতের পাইপের উপর এই দেশটির অবস্থান। দেশটিতে কোনো মাটি নেই। পুরোটাই ইস্পাত। দেশটিতে যেতে হলে ইংল্যান্ডের উত্তর উপকূল থেকে ১০ কিলোমিটার সাগরের গভীরে যেতে হবে। দেশটিতে একটিমাত্র ঘর চোখে পড়বে আর তা হল এই দেশের রাজপ্রাসাদ। রাজপ্রাসাদের উপর দেশটির পতাকা উড়তে দেখা যাবে।

এটি ২য় বিশ্বযুদ্ধের সময় ব্যবহৃত একটি সমুদ্র বন্দর। জার্মান সেনারা যে কোনো সময় ইংল্যান্ড আক্রমণ করতে পারে এমন আশঙ্কা থেকে ব্রিটিশ সেনাবাহিনী ইংল্যান্ডের উপকূলভাগে সমুদ্র দুর্গ বানানোর পরিকল্পনা করল। সে পরিকল্পনা থেকেই উপকূল থেকে ১০ কিলোমিটার গভীরে বানানো হলো মউনশেল সি ফোর্ট। এখান থেকে শত্রু যুদ্ধ জাহাজগুলোর ওপর নজরদারি করা হতো। প্রয়োজনে শত্রু জাহাজে আক্রমণ পরিচালনার কাজও চলত। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শেষ হলে অন্যান্য অসংখ্য দুর্গের সঙ্গে ব্রিটিশ সেনাবাহিনী এটাকেও পরিত্যক্ত ঘোষণা করে।

ব্রিটিশ নাগরিক Major Paddz Roy Bates ও তার পরিবার ১৯৬৭ সালের ২রা সেপ্টেম্বর এ জায়গাটির স্বত্বাধিকারী প্রাপ্ত। তারা একে একটি স্বাধীন মাইক্রো রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণা দেন। যদিও পৃথিবীর কোনো দেশ এখনও সিল্যান্ডকে স্বীকৃতি দেয়নি কিন্তু কেউ তাদের বিরোধিতা করেনি। এর মোট জনসংখ্যার ৩ জনই Bates পরিবারের সদস্য যারা এই রাজ্যের রাজা, রানী ও রাজপুত্র। দেশটির আছে নিজস্ব পতাকা, নিজস্ব মুদ্রাব্যবস্থাও। কিন্তু সে দেশটিতে নেই কোনো প্রজা কিংবা সাধারণ নাগরিক।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg