শিরোনাম
মানিকগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন: সভাপতি আমিনুল, সম্পাদক নুরুজ্জামান গোয়ালন্দে ৪ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক কাজী ছালামের বিরুদ্ধে বাল্যবিয়ে পড়ানোসহ নানা অভিযোগ গোয়ালন্দে পানিতে ডুবে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু গোয়ালন্দে বিদেশে পাঠানোর প্রলোভনে বাগানে নিয়ে এক নারীকে গণধর্ষনের অভিযোগ কৃষকের বাড়ি নির্মাণে আ.লীগ নেতার চাঁদা দাবি, থানায় অভিযোগ ছাত্রীদের উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় শিক্ষককে পেটালো সাবেক ২ ছাত্র গোয়ালন্দে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে যুবককে কোদাল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা বাড়ছে ভাসমান ভিক্ষুকের সংখ্যা এক ঘন্টার প্রতীকী ইউএনও হলেন ফারজানা আক্তার

দুধ বিক্রি না করায় কৃষককে পেটালেন আ.লীগ নেতা

নিউজ ডেস্ক | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ৭৯ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : শুক্রবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২

0Shares

সাইফুল ইসলাম, মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি, ২৩ সেপ্টেম্বর
মানিকগঞ্জের উপজেলা চেয়ারম্যানের প্রতিষ্ঠিত বাজারে দুধ বিক্রি না করায় শাহজাহান (৬০) নামের এক কৃষককে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সাটুরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা এ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ ফটোর বিরুদ্ধে।
শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে উপজেলার ফুকুরহাটি ইউনিয়নের জান্না বাজারের প্রবেশ মুখে কালভার্টের পাশে এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী শাহজাহান উপজেলার রাইল্যা গ্রামের মৃত তাহা উদ্দিনের ছেলে।
জানা গেছে, উপজেলার রাইল্যা গ্রামে প্রায় ১৫ বছর আগে একটি বাজার প্রতিষ্ঠা করেন সাটুরিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ ফটো। কিন্ত স্থানীয় কতিপয় প্রভাবশালীদের স্বেচ্ছাচারিতা ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে পণ্য নিয়ে টাকা না দেয়াসহ নানা অভিযোগে বাজারটি এখনো জমে উঠেনি। এলাকার অধিকাংশ লোকজনই পাশের এলাকার জান্না বাজারে বেচাকেনা করেন। ফলে জমজমাট হয়ে উঠে জান্না বাজার। কৃষিকাজের পাশাপাশি জান্না বাজারে প্রায় ২০ বছর ধরে সাইকেল মেরামতের কাজ করেন ভুক্তভোগী শাহজাহান। তিনি শুক্রবার সকালে দুধ বিক্রি ও দোকান খোলার উদ্দেশ্যে জান্না বাজারে যাওয়ার সময় তার পথ রোধ করে রাইল্যা বাজারে না গিয়ে জান্না বাজারে যাওয়ার কারণ জিজ্ঞাসা করেন আব্দুল মজিদ ফটো। এ সময় কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ ফটো ফুকুরহাটি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী লাবুসহ কয়েকজনকে সাথে নিয়ে কৃষক শাহজাহানকে বাঁশের লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করেন।
মারধরের শিকার কৃষক শাহজাহান কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, আমি প্রায় ২০ বছর ধরে জান্না বাজারে দোকান করি। দুধ নিয়ে নিয়ে বাজারে যাচ্ছিলাম। আমি উনাদের দেখে সালাম দিয়ে এগিয়ে গেছি। তিনি আমাকে দুধ নামিয়ে সাইকেল সাইট করতে বলেন। এরপর আমাকে অনেকক্ষণ দাড় করিয়ে রাখেন। তারপর আমি শুধু জিজ্ঞাসা করেছি, ভাই আমি এখন কি করবো? একথা বলার পরই নেতা আমাকে মার শুরু করেন। আমাকে ঘুষি দিয়েছে, আমার দুইটা দাঁত নড়তেছে। আর পায়ে ও হাটুর নীচে লাঠি দিয়ে বাইড়াইছে।
কৃষক শাহজাহানের ছেলে আল আমীন জানান, রাইল্যা বাজারটা অনেক চেষ্টা করেও জমে উঠছে না। আমার আব্বা রাইল্যা বাজার রেখে দুধ নিয়ে জান্না বাজারে যাচ্ছিল। তখন তাকে রাস্তায় অনেকক্ষণ আটকে রাখার পর আমার আব্বা শুধু বলেছে, ভাই আমি এখন কি করবো? কিন্ত তারা মনে করেছে আব্বা বলেছে আমাকে কি করবেন? এ কথার পরই আমার আব্বাকে মারধর করেছে।
বিষয়টি নিয়ে জান্না বাজরের এক হোটেল ব্যবসায়ী নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, শাহজাহান কৃষিকাজের পাশাপাশি দীর্ঘদিন ধরে জান্না বাজারে সাইকেল মেকারের কাজ করে। রাইল্যা বাজার রেখে জান্না বাজারে দুধ বিক্রি করতে আসায় তাকে বাঁশের লাঠি দিয়ে ছ্যাচা মাইর দিয়েছে।
জানতে চাইলে এ বিষয়ে এ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ ফটে বলেন, শাহজাহান আমার ভাতিজা। সে বেয়াদবি করেছিল, তাকে শুধু একটু শাসন করেছি।
এ বিষয়ে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাডভোকেট গোলাম মহিউদ্দিন বলেন, তিনি একটা হট মেজাজের লোক। তার মত সিনিয়র ও অভিজ্ঞ একজন লোক সাধারণ একজন কৃষককে মারধর করাটা খুবই দু:খজনক। এটা কোনভাবেই ঠিক হয়নি।
এ ব্যাপারে মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। এ নিয়ে কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg