শিরোনাম
গোয়ালন্দে বিপুল পরিমাণ ফেন্সিডিল ও ইয়াবাসহ আটক ৫ আইনপ্রণেতা হয়ে নিজেই আইন লঙ্ঘন করলেন এমপি মমতাজ নানা অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ গোয়ালন্দ সরকারি হাসপাতালে মসজিদে জমি দান করায় বাবাকে হাতুড়িপেটা করে নির্মমভাবে হত্যা গোয়ালন্দে ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে রাজনীতিকে বিদায় জানালেন ছাত্রলীগ নেতা দুধ বিক্রি না করায় কৃষককে পেটালেন আ.লীগ নেতা ঢাকাসহ ১৩ জেলায় ৬০ কিমি বেগে ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাস বিদ্যালয়ের শ্রেণি কক্ষ ভাড়া নিয়ে চলছে ইউনিয়ন পরিষদের কার্যক্রম ! ব্যাহত হচ্ছে স্কুলের পাঠদান। মানিকগঞ্জে পাসপোর্ট করতে এসে দালালসহ রোহিঙ্গা নারী আটক

রাশিয়া থেকে সৌদির দ্বিগুণ তেল আমদানি

নিউজ ডেস্ক | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ৭৮ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : শনিবার, ১৬ জুলাই, ২০২২

0Shares

এপ্রিল থেকে জুন এই তিন মাসে রাশিয়া থেকে দ্বিগুণ জ্বালানি তেল আমদানি করেছে সৌদি আরব৷ গ্রীষ্মে বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলোতে জ্বালানি হিসেবে ব্যবহারের জন্য তারা এই তেল আমদানি করেছে বলে জানা গেছে৷

বিশ্বে অপরিশোধিত ক্রুড তেলের সবচেয়ে বড় রপ্তানিকারক দেশ সৌদি আরব৷ কিন্তু গত তিন মাসে দেশটি নিজেই রাশিয়ার কাছ থেকে আগের বছরের একই সময়ের চেয়ে দুই গুণ বেশি তেল আমদানি করেছে৷ রেফিনিটিভ এইকন নামের একটি প্রতিষ্ঠানের ‘শিপ ট্র্যাকিং ডেটা’ বিশ্লেষণ করে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স৷ এতে দেখা যাচ্ছে চলতি বছরের এপ্রিল থেকে জুন পর্যন্ত মস্কোর কাছ থেকে ছয় লাখ ৪৭ হাজার টন জ্বালানি তেল আমদানি করেছে রিয়াদ৷ যেখানে আগের বছরের একই সময়ে আমদানি হয়েছিল তিন লাখ ২০ হাজার৷ ২০২১ সালে সৌদি আরবে মোট তেল আমদানির পরিমাণ ছিল সাড়ে ১০ লাখ ৫০ হাজার টন৷

এখানেই শেষ নয়, সৌদি আরব বড় আকারের তেল আমদানি করেছে মিশরের কাছ থেকেও৷ আবার মিশর নিজেও রাশিয়ার কাছ থেকে রেকর্ড অঙ্কের তেল কিনেছে৷ জ্বালানি বিশ্লেষণ প্রতিষ্ঠান ভরটেক্সার তথ্য অনুযায়ী, জুনে মিশর থেকে দৈনিক এক লাখ ১০ হাজার ব্যারেল তেল আমদানি করেছে সৌদি আরব৷ এর আগে কখনও একমাসে দেশটির কাছ থেকে এত বেশি তেল আমদানি করেনি তারা৷ অন্যদিকে মিশর রাশিয়ার কাছ থেকে একই মাসে রেকর্ড দৈনিক ৭০ হাজার ব্যারেল তেল কিনেছে৷

কেন তেল কিনছে সৌদি আরব?

বিশ্বের জ্বালানি তেলের বাজারে সৌদি আরব সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী হওয়া সত্ত্বেও গত কয়েক বছর ধরে রাশিয়া থেকে দেশটি তেল আমদানি করে৷ মূলতঃ বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলোর জ্বালানি হিসেবে ব্যবহারের জন্য পরিশোধিত তেল কেনে তারা৷ এতে নিজেদের তেল পরিশোধন করতে হয় না বরং নিজেদের উৎপাদিত অপরিশোধিত ক্রুড বিশ্ব বাজারে অপেক্ষাকৃত বেশি দামে বিক্রি করে৷

চলতি বছর গ্রীষ্মে তীব্র গরমে সৌদি আরবে বিদ্যুতের চাহিদা ব্যাপক বেড়ে যায়৷ বাড়তি বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য তাই জ্বালানি তেলের আমদানিও বেড়েছে বলে জানিয়েছে ভারটেক্স৷ প্রতিষ্ঠানটির হিসাবে জুনে দৈনিক তিন লাখ ২০ হাজার ব্যারেল তেল আমদানি করেছে সৌদি যা ২০২০ সালের নভেম্বরের পর সর্বোচ্চ৷

বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে রাশিয়া থেকে সৌদি আরবের তেল আমদানির পরিসংখ্যান নিয়ে দুই দেশের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় রয়টার্সের কাছে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে৷

জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধিতে রাশিয়ার পোয়াবারো

ইউক্রেন যুদ্ধ ও রাশিয়ার উপর পশ্চিমা দেশগুলোর নিষেধাজ্ঞায় রাশিয়ার তেল রপ্তানিতে তেমন প্রভাব পড়েনি৷ নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও সৌদি আরবের মতো বিভিন্ন দেশ বরং তাদের থেকে আমদানি বাড়িয়েছে৷ এই তালিকায় আছে চীন, ভারতসহ আফ্রিকা ও মধ্যপ্রাচ্যের বেশ কিছু দেশও৷

বিশ্ববাজারে তেল, গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধিও রাশিয়ার জন্য সুফল বয়ে এনেছে৷ ব্লুমবার্গের প্রতিবেদন অনুযায়ী, বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে অর্থাৎ এপ্রিল থেকে জুনে দেশটির চলতি হিসাবে উদ্বৃত্ত রেকর্ড সাত হাজার কোটি ডলার ছাড়িয়ে গেছে৷ জ্বালানি ও পণ্য রপ্তানি থেকে আয় বৃদ্ধি সেই সঙ্গে আমদানি হ্রাস এই ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা রেখেছে৷

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের তথ্য অনুযায়ী, সব মিলিয়ে বছরের প্রথমার্ধে রাশিয়ার চলতি হিসাবে উদ্বৃত্ত ছিল ১৩ হাজার ৮৫০ কোটি ডলার, যা আগের বছরের একই সময়ের চেয়ে তিন গুণ বেশি৷

সূত্রঃ  dw.com

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg