শিরোনাম
দলীয় প্রতীক নিয়ে ইউপি নির্বাচনে দুইবার ভরাডুবি, এবার প্রার্থী হয়েছেন উপজেলায় গোয়ালন্দে হেরোইনসহ মাদক কারবারি আটক গোয়ালন্দে ইয়াবাসহ মাদক কারবারি গ্রেপ্তার গোয়ালন্দে ইয়াবাসহ মাদক কারবারি গ্রেপ্তার গোয়ালন্দে সঞ্চারণ সিরাত প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত কৃষককে অফিস থেকে বের করে দেওয়া সেই দুই কর্মকর্তাকে বদলি কখনো ম্যাজিস্ট্রেট, কখনো মেজর পরিচয়ে প্রতারণা করতেন মুক্তা পারভিন প্রেম করে বিয়ে, স্বামীর হাতেই মৃত্যু  ঈদ উপলক্ষে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ১৫ টি ফেরি ও ২২ টি লঞ্চ চলাচল করবে

গোয়ালন্দে অজ্ঞান পার্টি চক্রের পাঁচ সদস্য আটক

নিউজ ডেস্ক | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ১৯৯ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ২৯ জুন, ২০২২

0Shares

স্টাফ রিপোর্টার,

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে সংঘবদ্ধ অজ্ঞান পার্টি চক্রের ৫ সদস্যকে আটক করেছে র‍্যাব-৮, সিপিসি-২, ফরিদপুর ক্যাম্প।

মঙ্গলবার (২৮ জুন) ফরিদপুর র‍্যাব ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার পুলিশ সুপার মো. শফিকুল ইসলাম এক প্রেস ব্রিফিং এর মাধ্যমে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ফরিদপুর র‍্যাব ক্যাম্প জানতে পারে যে পবিত্র ঈদুল আযহাকে কেন্দ্র করে অজ্ঞান পার্টির একটি চক্র জনসাধারনের নিকট হতে মূল্যবান সামগ্রী হাতিয়ে নেওয়ার জন্য সক্রিয় হয়ে উঠেছে।

উক্ত সংবাদ অবহিত হওয়ার পর র‍্যাব-৮, সিপিসি-২ ফরিদপুর র‍্যাব ক্যাম্পের একটি বিশেষ আভিযানিক দল পুলিশ সুপার মো. শফিকুল ইসলাম এর নেতৃত্বে মঙ্গলবার ভোররাতে গোয়ালন্দ ঘাট থানা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে অজ্ঞান পার্টি চক্রের ০৫ সদস্যকে আটক করা হয়।

আটক অজ্ঞান পার্টি চক্রের সদস্যরা হলেন, খুলনা জেলার খালিশপুর উপজেলার মৃত হাফিজ খানের ছেলে মো. মাসুদ খাঁ (৪০), দাকোপ উপজেলার গুনাড়ী গ্রামের মুক্তার মীরের ছেলে আলমগীর খান (২৮), ডুমুরিয়া উপজেলার রাজাপুর গ্রামের আমজাদ গাজীর দুই ছেলে মো. রিপন গাজী (৩০) ও মো. লিটন গাজী (২৮), এবং জামালপুর জেলার শরিষাবাড়ি উপজেলার আব্দুল মান্নান মন্ডলের ছেলে মো. কিরা মিয়া (৩৮)।

এ সময় আটককৃত ব্যক্তিদের হেফাজত হতে বিভিন্ন ধরনের অজ্ঞান করার সামগ্রী জব্দ করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী বাসে চলাচলরত যাত্রীসহ গরু ব্যাবসায়ীদের অজ্ঞান করে সর্বস্ব লুট করত চক্রটি। তারা ভালো সম্পর্ক তৈরি করে বিষাক্ত খাবার এবং ওষুধ খাওয়ানোর মাধ্যমে অজ্ঞান করে মূল্যবান সরঞ্জাম যেমন; মোবাইল ফোন, টাকা-পয়সা, স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নিত।

উদ্ধারকৃত মালামালসহ আটককৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দঘাট থানায় সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে।

এ সময় র‍্যাব-৮ এর কর্মকর্তা সহকারী পুলিশ সুপার খোরশেদ আলম ব্যবসায়ী ও যাত্রী দের উদ্দেশ্যে বলেন, অপরিচিত কোন লোকের দেয়া বা ভ্রাম্যমান হকারের নিকট থেকে কোন খাদ্য দ্রব্য ও পানীয় না খাওয়ার জন্য অনুরোধ করেন। সেই সাথে সব সময় সবাইকে সতর্কতা অবলম্বন করে চলাচলের অনুরোধ জানান।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg