শিরোনাম
ফরিদপুরে হাসপাতালে জন্ম নেয়া কন্যা সন্তানকে স্বর্ণের কানের দুল উপহার  গোয়ালন্দে ১০ গ্রাম হেরোইনসহ এক যুবক গ্রেপ্তার গোয়ালন্দে দুই কেজি গাঁজাসহ মাদক কারবারি আটক। রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ পৌরসভার ৫৫ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলায় প্রতি পিস লেবু ২০-৩০ পয়সা,হতাশ চাষীরা। গোয়ালন্দে অজ্ঞান পার্টি চক্রের পাঁচ সদস্য আটক দৌলতদিয়ায় যানবাহনের অপেক্ষায় ফেরি বাদল হত্যাকান্ডে জড়িতদের শাস্তির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন রাজবাড়ীর পাংশায় গ্যাস সিলিন্ডার থেকে আগুন, শিশুসহ চারজন অগ্নিদগ্ধ কুষ্টিয়ায় মাদকদ্রব্য অপব্যবহার ও পাচারবিরোধী আন্ত: দিবস পালিত।

গোয়ালন্দে প্রধান সড়ক ক্ষতি করে অবৈধ ভাবে ড্রেন নির্মাণের অভিযোগ

ষ্টাফ রিপোর্টার | রাজবাড়ী টেলিগ্রাফ / ৬৫ বার পড়া হয়েছে
সর্বশেষ আপডেট : মঙ্গলবার, ৩১ মে, ২০২২

0Shares

স্টাফ রিপোর্টার,

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ পৌর শহরের প্রধান সড়ক সংকুচিত ও ক্ষতি করে অবৈধ ভাবে ড্রেন নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গুরুত্বপূর্ণ এ সড়কের পাশ দিয়ে ড্রেন নির্মাণের কথা থাকলেও একাধিক স্থানে প্রভাবশালীদের স্থাপনা রক্ষায় আড়াই থেকে তিন ফুট সড়ক ভেঙে ড্রেন নির্মাণ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় স্থানীয়দের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

জানা যায়, গোয়ালন্দ শহরের জলাবন্ধতা দুর করা ও পানি নিষ্কাশনের জন্য ড্রেন করতে ৯ কোটি ৬০ লাখ টাকা ব্যায়ে আরসিসি ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু হয়। এ প্রকল্পে আওতায় সাড়ে ৩ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যে ৭টি ড্রেন নির্মাণ করা হবে। ৫ ফুট ৮ ইঞ্চি প্রশস্ত এই ড্রেনের গভীরতা হবে গড়ে ৭ ফুট। বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর ও গোয়ালন্দ পৌরসভার তত্তবধানে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কেকেআর এন্টারপ্রাইজ চলতি বছর এপ্রিল মাসে এ ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু করছে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, গোয়ালন্দ পৌর শহরের প্রধান সড়কের গোয়ালন্দ বাসস্ট্যান্ড থেকে বাজার অভিমুখে ড্রেন নির্মাণের জন্য বাসস্ট্যান্ড থেকে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ভেঙ্গে ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু করেছিল ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। কিন্তু বাসস্ট্যান্ড থেকে ৫০-৭০ মিটার পর কে মুহিত হিরার বাড়ির সম্মুখে শতবর্ষী পুরাতন পাকা সড়কের প্রায় ৩ ফুট অংশ কেটে ড্রেন নির্মাণের জন্য খনন করা হয়। ব্যস্ততম এ সড়ক সংকুটিত ও ক্ষতি করে কাজ করায় স্থানীয়রা ক্ষিপ্ত হয়ে গত শনিবার (২৮ মে) কাজটি বন্ধ করে দেয়।

পরবর্তীতে গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আজিজুল হক খান মামুন সরেজমিনে এসে নিয়ম ভেঙে গুরুত্বপূর্ণ সড়কের ক্ষতি করে ড্রেন নির্মাণে কর্মরত ৪ শ্রমিককে আটক করেন। ৩ ঘন্টা আটক থাকার পর চার শ্রমিক মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পান।

স্থানীয় শামীম মোল্লা অভিযোগ করে জানান, ইতিমধ্যে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ভেঙে ড্রেন নির্মাণ করা করা হচ্ছে। কিন্তু ২/১ জন প্রভাবশালী ব্যাক্তির স্বার্থ রক্ষায় কেন এভাবে ব্যস্ততম সড়কের ক্ষতি করা হচ্ছে তা আমাদের বোধগম্য নয়।এ ধরনের সজন পিরিতের কারণে এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ হয়ে ড্রেন নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয়।

এ প্রসঙ্গে গোয়ালন্দ পৌরসভার মেয়র মো. নজরুল ইসলাম মন্ডল বলেন, ড্রেন নির্মাণ কাজ করতে নকশার বাইরে গিয়ে সড়ক কাটার অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়। পরবর্তীতে যথাযথ ভাবে গুরুত্বপূর্ণ এই ড্রেন নির্মাণের নির্দেশনা দিয়ে লিখিত চিঠি প্রদান করা হয়েছে। এবং এই শর্তে পুনরায় কাজটি শুরু করেছে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান।

Facebook Comments


এ জাতীয় আরো খবর
NayaTest.jpg